রবিবার , ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ , ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৩ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > অবৈধ অভিবাসীর তালিকা করবে সরকার

অবৈধ অভিবাসীর তালিকা করবে সরকার

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশে অবস্থানরত মিয়ানমারের রোহিঙ্গা শরণার্থী এবং অবৈধভাবে বসবাসকারীদের তালিকা প্রস্তুত করবে সরকার।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশারারফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশে অবস্থানরত মিয়ানমার শরণার্থী এবং অবৈধ অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিকদের বিষয়ে একটি জাতীয় কৌশলপত্র অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা।

সচিব বলেন, ‘বর্তমানে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীর সঠিক সংখ্যা সরকারের জানা নেই। তবে দুটি শরণার্থী কেন্দ্রের ৩০ হাজার রোহিঙ্গার বাইরে দেশে প্রায় ৩ লাখ থেকে ৫ লাখ মিয়ানমারের নাগরিক বসবাস করছে। এইসব অবৈধ অভিবাসীর কারণে দেশে আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক, পরিবেশগত ও নিরাপত্তাজনিত সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।’

এছাড়া সভায় ‘নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩’-এর খসড়ার চুড়ান্ত অনুমোদন এবং ‘বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এন্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ আইন ২০১৩’-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।

নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩ প্রসঙ্গে সচিব বলেন, সর্বোচ্চ ৫ বছরের জেল ও ৫ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে আইনে। এটি চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এখন এটা বিল আকারে সংসদে উপস্থাপন করা হবে ।

তিনি বলেন, ‘‘একটি স্বতন্ত্র সংস্থার মাধ্যমে এটি নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ’। এটি একা কাজ করবে না, এটি হবে বর্তমানে খাদ্যের মান বজায় রাখার জন্য যে সব প্রতিষ্ঠান কাজ করছে তাদের সমন্বিত একটি সংস্থা। এ সংস্থাকে সহায়তা দেবে ‘জাতীয় নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থা উপদেষ্টা পরিষদ’। এর সভাপতি হবেন খাদ্যমন্ত্রী। এ পরিষদকে পরামর্শ দেয়ার জন্যও আলাদা একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সমন্বয়ে কমিটি করা হবে।’’

প্রস্তাবিত আইনে খাদ্যে ভেজাল ও রাসায়ানিক উপকরণ পাওয়া গেলে ৪ থেকে ৫ বছরের কারাদণ্ড ও ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড এবং ২ বছর থেকে ৫ বছর কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। একই অপরাধ দ্বিতীয়বার করলে দ্বিগুণ শাস্তি হবে।

>