সোমবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ , ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৪ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা ॥ সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলামকে (৪৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শিবপুরের হরিশপুর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রবিউল ইসলাম শিবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রজব আলীর ছেলে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. মুনসুর আহমেদ জানান, রাত ১০টার দিকে সদরের পরানদহা বাজার থেকে রবিউল শিবপুর ইউনিয়নের তেতুলতলা গ্রামে নিজ বাসায় ফিরছিলেন। তিনি হরিশপুর মোড়ে পৌঁছালে আগে থেকে উৎপেতে থাকা সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা তার গতিরোধ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে চলে যায়।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক গনেশ চন্দ্র মণ্ডল জানান, আওয়ামী লীগ নেতা রবিউল ইসলাম রাতে মোটরসাইকেল যোগে পরানদহা বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা হামলা চালিয়ে তাকে হত্যা করেছে।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম শওকত হোসেন জানান, নিহত রবিউল ইসলামের সঙ্গে এলাকায় কারো কোনো প্রকার শত্রুতা ছিল না। রবিউল ইসলাম মিশুক ব্যক্তি ছিলেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতি করার কারণে জামায়াত-শিবির তাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে দলীয় নেতাদের অভিযোগ।

শিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আকবার আলী ঘটনাস্থল থেকে রাত ১১টা ২০ মিনিটে জানান, রবিউল ইসলামের সঙ্গে জমি কিংবা ব্যবসায়িক সূত্রে কারো সাঙ্গে কোনো প্রকার শত্রুতা ছিল না। নিছক রাজনৈতিক শত্রুরাই তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, নিহত রবিউল ইসলামের শরীরে একাধিক কোপের দাগ রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি মানকি টুপি (মুখোশ) উদ্ধার করেছে। রবিউলের মোটরসাইকেলটি ভাঙচুর করা অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে সদর থানার পুলিশ সহকারি পুলিশ সুপার মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। এই হত্যাকাণ্ডে কারা জড়িত এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি মুখ খুলতে রাজি হননি।

>