সোমবার , ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ , ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৭ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > এবার ম্যাচসেরা সাকিব

এবার ম্যাচসেরা সাকিব

শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক ॥ ব্যাট হাতে সাকিব আল হাসান রান পাননি এবারও। উইকেটও পেলেন মাত্রই একটি। তবে ম্যাচ শেষে নায়ক এই বাংলাদেশ তারকাই। ম্যাচের মোম সময়ে নৈপুণ্য নিয়ে এ অলরাউন্ডারের হাতেই উঠলো ম্যাচসেরার পুরস্কার। ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লীগে বৃহস্পতিবার সাকিবের দল বারবাডোস ট্রাইডেন্টস মোকাবিলার নামে অ্যান্টিগা হকসবিলস-এর। এতে বারবাডোস ১২ রানে হারায় অ্যান্টিগাকে। ১৪৭ রানের টার্গেটে অ্যান্টিগা ওপেনার জনসন চার্লস নিজের ব্যাটে ধার দেখালেও অন্যপ্রান্তে দেখছিলেন বিপরীত চিত্র। অ্যান্টিগার অপর ওপেনার ডেভন থমাসের ব্যাট হাতে ধকলটা থামে ব্যক্তিগত ২ রানে উইকেট বিসর্জন দিয়ে। কিন্তু ততণে থমাস খেলে নিয়েছেন ১৩ বল। ডান-হাতি মিডিয়াম ফাস্ট বোলিংয়ে থমাসের  উইকেটটি নেন বারবাডোস তারকা রায়াদ এমরিত। তবে এখানেই বাংলাদেশ তারকা সাকিব আল হাসানের তেলেসমাতি। নিজের উইকেট দেয়ার আগে সাকিবের বাঁ-হাতি স্পিনে একটানা নাজেহাল দেখা গেছে অ্যান্টিগা ওপেনার থমাসকে। এতে ছিল সাকিবের এক ওভার মেডেন। ব্যাট হাতে অ্যান্টিগার ওয়ান ডাউন-এ নামেন সাবেক অসি অধিনায়ক রিকি পন্টিং। এবারের ইংলিশ কাউন্টি লীগে দুর্দান্ত নৈপুণ্যে থাকা বিশ্বের শীর্ষ এ ব্যাটসম্যানকেও ক্রিজে জমতে দেননি সাকিবই। ব্যক্তিগত এক রানে পন্টিংয়ের উইকেট তুলে নেন সাকিব। ইনিংসে শুরুর এ ধাক্কা আর সামলে উঠতে ব্যর্থ হয় অ্যান্টিগা। ২০ ওভারে ১৩৪ রানে থামে তাদের ইনিংস। স্বাগতিক ব্রিজটাউন মাঠে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে যায় সাকিবের দল বারবাডোস। ৫৩ রানে বারবাডোসের  দ্বিতীয় উইকেটের পতনে ব্যাট হাতে ক্রিজে যান সাকিব। আর ক্যারিবিয়ার ক্রিজে মানিয়ে নিয়ে দেখান আলাদা সংযমও। ৬ বলে মাত্র ১ রান নিয়ে অ্যান্টিগা অধিনায়ক মারলন স্যামুয়েলসের স্পিনে সাকিব ক্যাচ দেন উইকেটরক থমাসকে। এদিন উইকেটের পেছনে থমাসের ক্যাচ ৪টি। তবে বারবাডোসের ব্যাট হাতে ব্যক্তিগত বড় ইনিংসে দেখাতে পারেননি কেউই। শোয়েব মালিক, কার্টার ও উমর আকমলের ব্যক্তিগত সংগ্রহ ৩৩, ৩১ ও ৩০ রান। এতে ৮ উইকেট ১৪৬ রানে শেষ হয় বারবাডোসের ২০ ওভার। জবাবে  ম্যাচের সর্বোচ্চ ৪৪ রান অ্যান্টিগা ওপেনার চার্লসের। বারবাডোস স্পিনার অ্যাশলি নার্স তিন ওভারে ২৮ রানে নেন চার উইকেট। ৪ ওভারের স্পেলে ১৬ রানে এক উইকেট সাকিবের।
সংপ্তি স্কোর
টস: বারবাডোস, ব্যাটিং
বারবাডোস ট্রাইডেন্টস: ২০ ওভার, ১৪৬/৮ (মালিক ৩৩, কার্টার ৩১, উমর আকমল ৩০, স্যামুয়েলস ২/১৭)
অ্যান্টিগা হকসবিলস: ২০ ওভার, ১৩৪/৮ (চার্লস ৪৪, স্যামুয়েলস ২৩, নার্স ৪/২৮, সাকিব ১/১৬)।
ফল: বারবাডোস ১২ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: সাকিব (বারবাডোস)।

>