শুক্রবার , ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ , ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ , ১০ই রমজান, ১৪৪২

হোম > আন্তর্জাতিক > করোনাভাইরাস : ট্রাম্প বললেন, ‘জাস্ট রিল্যাক্স’

করোনাভাইরাস : ট্রাম্প বললেন, ‘জাস্ট রিল্যাক্স’

শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ॥
খাদ্যসামগ্রীসহ অত্যাবশ্যকীয় জিনিসপত্র প্রয়োজনের অতিরিক্ত না কেনার জন্য আমেরিকান জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনগণের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, আমরা ক্রমান্বয়ে ভালোর দিকেই যাচ্ছি। দুশ্চিন্তার কারণ নেই, (করোনা মোকাবিলায়) আমরা অনেক ভালো করছি। অচিরেই সব ঠিক হয়ে যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত সাড়ে তিন হাজার ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এতে মারা গেছেন ৬৩ জন। এই অবস্থায় দেশটিতে অপচনশীল খাদ্য, টয়লেট পেপার ও পরিষ্কারকসামগ্রী কেনার ধুম পড়ে গেছে। এতে খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ও গ্রোসারিগুলোর মজুত দ্রুত শেষ হয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে রোববার সন্ধ্যায় হোয়াইট হাউসে জনগণের প্রতি এই আহ্বান জানান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এর আগে বিশ্বের বৃহত্তম খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালমার্টের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডগ ম্যাকমিলন এক আলাপচারিতায় জানান, জনগণ খ্রিস্টমাস আসতে না আসতেই অতিরিক্ত কেনাকাটা শুরু করে দিয়েছে। এ প্রসঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘আপনাদের এত বেশি কেনার দরকার নেই। বিষয়টাকে (করোনাভাইরাস) হালকাভাবে নিন। আরাম করুন।’

ট্রাম্প বলেন, ‘আমি বিভিন্ন খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা আমাকে জানিয়েছেন, করোনাভীতির কারণে জনগণ টয়লেট পেপার ও বোতলজাত পানির মতো অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বেশি বেশি করে কিনছেন। এতে করে অনেক স্টোর খালি হয়ে যাচ্ছে।’

‘আমেরিকান পরিবাররা আশ্বস্ত হতে পারেন যে, আপনাদের স্থানীয় গ্রোসারিগুলো খোলা থাকবে। আর সবকিছুই ভালোভাবে যোগান দেয়া হবে। তারা (খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান) আমাদের বিশেষভাবে বলেছেন, গ্রোসারি থেকে সাপ্তাহিক জিনিসপত্রগুলো কিনেতে জনগণকে উৎসাহিত করুন। কারণ গ্রোসারিগুলো সবসময় খোলা থাকবে’-বিফিংয়ে বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

জনগণকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মজুত করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে ট্রাম্প বলেন, ‘(এই মুহূর্তে) দেশের কারোরই প্রয়োজন নেই প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মজুত করার।’

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস টাস্ক ফোর্সের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেনস। করোনাভাইরাস সংকট চলাকালীন দোকান-পাট অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য খোলা থাকবে বলে ব্রিফিংয়ে জনগণকে আশ্বস্ত করেন তিনি।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৬৯ হাজার ৫৫২ জন এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ৬ হাজার ৫১৬ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। এছাড়া ৭৭ হাজার ৭৫৩ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে।

এখন পর্যন্ত ১৫৭টি দেশ ও অঞ্চলে করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। শুধুমাত্র চীনেই এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৮৬০ এবং সেখানে মারা গেছে ৩ হাজার ২১৩ জন।

চীনের পর করোনাভাইরাসে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ইতালিতে। সেখানে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৭৪৭ এবং মারা গেছে ১ হাজার ৮০৯ জন। দেশটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৫৯০।

এরপরেই রয়েছে ইরান। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ হাজার ৯৩৮ এবং মৃতের সংখ্যা ৭২৪। অপরদিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ২৩৬ এবং মৃতের সংখ্যা ৭৫।

সূত্র : ডেইলি মেইল

>