সোমবার , ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ , ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ , ৪ঠা জমাদিউস সানি, ১৪৪২

হোম > জাতীয় > কাপাসিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৭

কাপাসিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৭

শেয়ার করুন

আকরাম হোসেন রিপন
চীফ রিপোর্টার ॥
গাজীপুর: কাপাসিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রী এক সন্তানের জননী গৃহবধূ পালাক্রমে ধর্ষণের দায়ে ৭ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার তরগাঁও ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামের নরদার টেক এলাকায়।

আজ শুক্রবার ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে ৮ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃতদের গাজীপুর বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, নির্যাতিতা গৃহবধূর স্বামীর বাড়ি মনোহরদী উপজেলার বীর আহম্মেদপুর গ্রামে। গত বুধবার সে তরগাঁও ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামের তাঁর পিতার বাড়িতে বেড়াতে আসে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার পূর্ব পরিচিত সাখাওয়াত ও সাকিব মোবাইল ফোন দেওয়ার কথা বলে পাশ্ববর্তী নর্দার টেক স্থানে ডেকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে ওই টেকের একটি কড়ই গাছের নিচে সাখাওয়াত, সাকিবসহ অন্যরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষিতাকে আটকে রেখে তার মায়ের কাছে মোবাইল ফোনে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে বিকাশে পাঠাতে বলে। তার মা বিষয়টি থানায় অবহিত করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রথমে মাসুমকে গ্রেফতার করে তার স্বীকারোক্তিতে রাতভর অভিযান চালিয়ে অপর ছয়জনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনার মূল হোতা চরখামের গ্রামের আইনউদ্দিনের পুত্র সাখাওয়াত হোসেন (২৪) পলাতক রয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলোঃ- তরগাঁও গ্রামের মোস্তফা বেপারীর পুত্র রোমান বেপারী (২০), মহসিন বেপারীর পুত্র জোবায়ের বেপারী (২০), মফিজউদ্দিন সর্দারের পুত্র মোস্তারিন (১৯), এহসান বেপারীর পুত্র সাহাবুল হোসেন সাকিব (২১), বাদল মোড়লের পুত্র মাহফুজুল হক (২০), বোয়ালিয়ার টেকের মৃত ছফুরউদ্দিনের পুত্র মাসুম শেখ (২১), সামসুল হকের পুত্র রাকিব হোসেন (২০)।

কাপাসিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলম চাঁদ জানান, গ্রেফকারকৃতরা এ ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। মূল হোতা সাখাওয়াত হোসেনকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গাজীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কালীগঞ্জ) সার্কেল ফারজানা ইয়াসমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শণ ও ভিকটিমের জবানবন্দি নিয়েছেন।

>