বুধবার , ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ , ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৯ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > খোশ আমদেদ মাহে রমজান

খোশ আমদেদ মাহে রমজান

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥
ঢাকা : আজ থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান। রহমত, বরকত ও নাজাতের বার্তা নিয়ে বছর ঘুরে পবিত্র এ মাস আবার আমাদের মাঝে উপস্থিত। ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এ মাসে সিয়াম সাধনার মাধ্যমে মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনে ব্রতী হবেন।

সিয়াম শব্দের আভিধানিক অর্থ সংযম। রমজান তাই আমাদের সব ধরনের পার্থিব লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ পরিহার করে আত্মসংযমের মাধ্যমে পরিশুদ্ধ মানুষে পরিণত হতে শিক্ষা দেয়। পবিত্র এ মাসে সূর্যোদয় থেকে শুরু করে সূর্যাস্ত পর্যন্ত পানাহারসহ সব রকম ইন্দ্রিয় তৃপ্তি থেকে বিরত থেকে মুসলমানরা আত্মসংযমের সাধনায় নিমগ্ন হবেন।

রমজান সবচেয়ে পবিত্র ও মর্যাদার মাস হিসেবে সমাদৃত। এ মাসেই মহানবীর (সা.) ওপর নাজিল হয়েছিল পবিত্র গ্রন্থ আল-কুরআন।

পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এডভোকেট, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা বাংলাদেশসহ মুসলিম উম্মাহর সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতির বাণী
মাহে রমজান উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এডভোকেট তার বাণীতে বলেন, সিয়াম সাধনা ও সংযমের মাস পবিত্র মাহে রমজান আমাদের মাঝে সমাগত। অশেষ রহমত, বরকত, মাগফিরাত ও নাজাতের এ মাসে আমি দেশবাসীসহ বিশ্ব সম্প্রদায়কে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানাই।

মাহে রমজান আত্মশুদ্ধি ও ক্ষমা লাভের অপার সুযোগ নিয়ে প্রতিবছর আমাদের কাছে হাজির হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ মাস মহান আল্লাহর নৈকট্য, রহমত, শান্তি এবং ক্ষমা লাভের অপূর্ব সুযোগ এনে দেয়। সিয়াম ধনী-গরিব সকলের মাঝে পারস্পরিক সহমর্মিতা, সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্ববোধ প্রতিষ্ঠায় অনন্য ভূমিকা পালন করে।

রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, রমজানের শিক্ষা সমাজের সকল স্তরে প্রতিফলিত হবে।

প্রধানমন্ত্রীর বাণী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, আত্মসংযম, অনুকম্পা ও ক্ষমা লাভের মাস রমজান। এ মাসে ত্যাগ স্বীকারের শিক্ষার মাধ্যমে আত্মার পরিশুদ্ধি ঘটে ও সর্বশক্তিমান আল্লাহর নৈকট্য লাভের সুযোগ হয়।

শেখ হাসিনা সকল প্রকার অকল্যাণ পরিহার করে শান্তি প্রতিষ্ঠায় পরস্পরকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়ে জীবনের সর্বস্তরে পরিমিতিবোধ, ধৈর্য ও সংযম প্রদর্শনের মাধ্যমে রমজান মাসের পবিত্রতা রক্ষা করার আহ্বান জানান।

জাতীয় জীবনে পবিত্র রমজানের শিক্ষা কার্যকর করার তৌফিক দানের জন্য তিনি মহান আল্লাহর রহমত কামনা করেন।

বিরোধীদলীয় নেতার বাণী
বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া তার বাণীতে বলেন, পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে আমি বাংলাদেশসহ মুসলিম উম্মাহর সবাইকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ।

মাহে রমজান প্রতিটি মুসলমানের জীবনে বয়ে আনুক শান্তি সুখের বার্তা। সবার জীবন হয়ে উঠুক মঙ্গলময়, মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে আমি এ প্রার্থনা জানাই।

বেগম খালেদা জিয়া বলেন, বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বের মুসলমান রমজান মাসে সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে আল্লাহর নৈকট্য লাভের জন্য আত্মার পরিশুদ্ধির প্রশিক্ষণে নিয়োজিত হয়। সারাদিন সকল ধরনের পানাহার মুক্ত থেকে মোমিন মুসলমানরা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করেন। অন্যায়, জুলুম, অবিচার এবং লোভ-লালসাসহ সকল ধরনের পাপ কাজ থেকে বিরত থাকার এক মহান শিক্ষা দেয় মাহে রমজান। এ শিক্ষাকে বুকে ধারণ করে নিজেদের পবিত্র মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে আমাদের ব্রতী হতে হবে। অনাচার, হিংসা-বিদ্বেষ, হানাহানি পরিহার করে সমাজে শান্তি বজায় রাখতে সচেষ্ট থাকা প্রতিটি ধর্মপ্রাণ মুসলমানের অবশ্য কর্তব্য।

বেগম খালেদা জিয়া তার বাণীতে সবার অব্যাহত সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মাহে রমজান উপলক্ষে অনুরূপ এক বার্তায় দেশবাসীসহ মুসলিম উম্মাহ্‌র সবাইকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন।

>