মঙ্গলবার , ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ , ৫ই মাঘ, ১৪২৭ , ৫ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২

হোম > সারাদেশ > গাজীপুরে পৈত্রিক ওয়ারিশ সম্পত্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন, মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

গাজীপুরে পৈত্রিক ওয়ারিশ সম্পত্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন, মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

শেয়ার করুন

এম.আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী
সিনিয়র রিপোর্টার ॥
গাজীপুর মেট্রো সদর থানার হাতিয়াব এলাকায় পৈত্রিক ওয়ারিশ সম্পত্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী নিরাঞ্জন বর্মনের পরিবার। ভুক্তভোগীর সৎ ভাই ও ভাইয়ের ছেলেরা তাকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করতে পুলিশের সহায়তায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় মহানগরের হাবিবুল্লাহ্ স্মরণীর ইকবাল কুটিরে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিরাঞ্জন বর্মণ (৫২)।
নিরাঞ্জন জানান, তিনি পিতা মনমোহন বর্মনের দ্বিতীয় স্ত্রী বামনী বর্মনের একমাত্র ছেলে। এনআইডি (নং-৮৬৬৯৯৫৩৩৩৬) এবং স্থানীয় কাউন্সিলরের দেয়া ওয়ারিশ সার্টিফিকেটে তার পরিচয় সে মনমোহন বর্মণের ছেলে। মনমোহনের প্রথম স্ত্রীর ৩ ছেলে- মৃত ছচি বর্মন, নরেন্দ্র বর্মন ও দীজেন বর্মন। মনমোহনের ৩৬ বিঘা সম্পত্তি রয়েছে। বিধান অনুযায়ী নিরাঞ্জন ৯ বিঘা সম্পত্তির মালিক। কিন্তু তার সৎ ভাইয়েরা একত্র হয়ে তাকে পিতার ওয়ারিশ থেকে বঞ্চিত করেছে।
তিনি আরও জানান, মৃত ছচি বর্মনের ছেলে পলাশ ও সুমন এবং অন্য দুই ভাই নরেন্দ্র ও দীজেন পুলিশের সহায়তায় তার নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। স্থানীয়ভাবে ৭ গ্রামের গণ্যমান্য মানুষের উপস্থিতিতে সালিশে নিরাঞ্জনকে তার প্রাপ্য সম্পত্তি বুঝিয়ে দেবার সিদ্ধান্তও সৎ ভাইয়েরা মান্য করেনি। সম্পত্তি ভোগ দখল করতে গেলে তাদেরকে মারধর করে আহত করা হয়। সৎ ভাই ও তার ভাতিজার লাঠির আঘাতে নিরাঞ্জনের স্ত্রীর মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়। তারপরও পুলিশ তাদের কোন মামলা নেয়নি।
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী নিরাঞ্জনের পরিবার তাদের পৈত্রিক ওয়ারিশ সম্পত্তি ভোগদখলের দাবি করে। একইসাথে মিথ্যা হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানায়।

>