মঙ্গলবার , ৯ই মার্চ, ২০২১ , ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ , ২৪শে রজব, ১৪৪২

হোম > সারাদেশ > গাজীপুরে যৌতুকের বলি হলেন গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তার

গাজীপুরে যৌতুকের বলি হলেন গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তার

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥
গাজীপুর: যৌতুকের চাহিদা মিটাতে না পারায় স্বামী ও ননাসের হাতে খুন হলেন গৃহবধূ মোসাঃ ইয়াসমিন আক্তার (২৬)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ইয়াসমিন আক্তার ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানার পাইথল গ্রামের মোঃ ইসলাম শেখের কন্যা। ছয় বছর পূর্বে গাজীপুর মহানগর ২৯নং ওয়ার্ডের চাবাগান এলাকার মৃত্য হযরত আলীর পুত্র মোঃ আল আমিন (৩০) এর সাথে বিবাহ হয়। সংসার জীবনে তাদের দুটি কন্যা সন্তান হাবিবা (৪) ও আদিবা (৩) রয়েছে। বিয়ের পর থেকে প্রায় সময়ই পাষন্ড স্বামী যৌতুকের জন্য স্ত্রী ইয়াসমিন কে মারধর করতেন। ইয়াসমিন তার স্বামীর অত্যাচার সইতে না পেরে ইয়াসমিন তার বাবা ইসলাম শেখ কে জানালে মেয়ের সুখের চিন্তা করে পাষন্ড আলামিনের চাহিদা অনুযায়ী যৌতুক মারফত একটি সুজুকি মোটর সাইকেল, নগদ তিন লক্ষ টাকা ও তিন ভরি স্বর্ণলংকার প্রদান করেন আলামিনকে। এইসব পাওয়ার কিছুদিন পরই ফের যৌতুকের জন্য আল আমিন ও তার বোন আছিয়া বেগম মিলে ফের ইয়াসমিন এর উপর নির্যাতন চালাতে থাকে।

ইয়াসমিন পুনরায় তাদের চাহিদা পূরনে অস্বীকার করায় গত ১৪ আগষ্ট সন্ধায় পাষন্ড স্বামী আল আমিন ও তার বোন আছিয়া বেগম এবং তাদের সহযোগী অজ্ঞাত নামা ব্যক্তিগণ মিলে ইয়াসমিন কে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে মূমর্ষ অবস্থায় নিজ ঘরে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে আশপাশের স্থানীয় লোকজন তাকে গুরুতর অবস্থায় শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার ইয়াসমিন কে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে ইয়াসমিনের পিতা বাদী হয়ে গত ১৫ আগষ্ট গাজীপুর সদর মেট্রো থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন (মামলা নং- ২৯)।

>