মঙ্গলবার , ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ , ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > ভ্যারাইটিজ > ঠাকুরগাঁওয়ে শীতকালীন লাউয়ের ন্যায্য মূল্য পেয়ে খুশি কৃষকেরা

ঠাকুরগাঁওয়ে শীতকালীন লাউয়ের ন্যায্য মূল্য পেয়ে খুশি কৃষকেরা

শেয়ার করুন

গৌতম চন্দ্র বর্মন
জেলা প্রতিনিধি ॥
ঠাকুরগাঁওঃ উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে গত বছরের তুলনায় এবার লাউয়ের ভাল ফলন হয়েছে। অল্প জমিতে অধিক হারে লাউয়ের চাষ করতে পেরে খুশী কৃষকরা। পোকার আক্রমণ আর নানা রোগবালাইয়ের পরও এবার লাউয়ের বাম্পার ফলন পাচ্ছেন কৃষকরা। বর্তমানে শীতকালীন সবজি লাউয়ের দাম বেশি থাকায় লাভবান হওয়ার আশায় মুখ ভরা হাসি নিয়ে মাচা থেকে লাউ সংগ্রহের কাজে ব্যস্ত কৃষকেরা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, জেলায় সাড়ে পাঁচ হাজার হেক্টর জমিতে সবজির চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। আর এ পর্যন্ত ৫০০ হেক্টর জমিতে লাউ চাষ করেছে কৃষকেরা।

সরেজমিনে জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, মাঠজুড়ে সারি সারি মাচায়-মাচায় ঝুলছে শীতকালীন ফসল লাউ। আর এই লাউ বাজারে ভালো দামে বিক্রির আশায় মাচা থেকে সংগ্রহ করে নির্দিষ্ট এক স্থানে জমা করছেন চাষীরা।

সদর উপজেলার দেওগা গ্রামের মফিজ উদ্দীন জানান, সবজি চাষ করে দূর করেছেন পরিবারের অভাব। এই মৌসুমে এক বিঘা জমিতে লাউয়ের চাষ করে প্রথমবার সংগ্রহ করেছেন এক হাজার লাউ। বাজারে তা বিক্রি করেছেন প্রতিটি ২০-২৫ টাকায়।

একই গ্রামের এমামুল হক জানান, এবার দুই বিঘা জমিতে লাউয়ের চাষ করে ১ লাখ টাকা আয় করেছেন। আরেক কৃষক আসরাফ আলী, জানান, ১৮ শতক জমিতে লাউ চাষ করে এখন পর্যন্ত ৬০ হাজার টাকার লাউ বিক্রি করেছেন। এখনও লাউয়ের গাছ তরতাজা আছে। সেখান থেকে অনেক টাকার লাউ বিক্রি করতে পারবেন। এক বিঘায় ৪০-৫০ হাজার টাকা খরচ করে লক্ষাধিক টাকা আয় করা সম্ভব।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আলতাফ হোসেন বলেন, এবার ঠাকুরগাঁওয়ে লাউয়ের বাম্পার ফলন হয়েছে। এবার দামও ভাল পাচ্ছে কৃষকেরা। আর কৃষকদের মাঠ পর্যায়ে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা।

>