রবিবার , ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ , ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৩ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > গ্যালারীর খবর > ফেলানী হত্যার বিচার হয়নি: ড. মিজানুর

ফেলানী হত্যার বিচার হয়নি: ড. মিজানুর

শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি, কুষ্টিয়া ॥ জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান বলেছেন, ফেলানী হত্যার বিচার হয়নি। বিচারের নামে প্রহসন করা হয়েছে।এরায়ের ফলে বিএসএফ’র জওয়ানদের অপরাধপবণতা আরও বেড়ে যাবে।

মঙ্গলবার সকালে কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশের নিরীহ জনগণের উপর নির্যাতন ও হত্যা সম্পর্কে তিনি বলেন, বিএসএফ যে কাজটি করেছে সেটি সুস্পষ্টভাবে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। এধরনের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত।

তিনি বলেন, বিএসএফ সদস্যদের মনে রাখতে হবে, এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক আইন রয়েছে। সেগুলির প্রতি তাদের সম্মান প্রদর্শন করতে হবে। কোন সভ্য দেশের মধ্যে এ ধরনের আচরণ থাকতে পারে না।

এই ধরনের কার্যকলাপ চলতে থাকলে আমরা আন্তর্জাতিক আদালতে যেতে বাধ্য হবে। এ বার্তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সরকারের তরফ থেকে ভারতের কাছে পৌঁছে দেয়া উচিত বলে জানান মিজানুর রহমান।

ড. মিজানুর আরো বলেন, দু’দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ভিত্তিতে এটি মীমাংসা হওয়া দরকার। এটি করার জন্য সরকারের অতি শীঘ্র পদক্ষেপ নেয়া উচিত।

পরে মিজানুর রহমান একই স্থানে ‘কুষ্টিয়ার সামাজিক বিপর্যয় ও মানবাধিকার লঙঘন প্রতিরোধে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক এডভোকেট সুলতানা কামাল। কুষ্টিয়া মানবাধিকার ফোরামের আহবায়ক মমতাজ আরা বেগম-এর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার মফিজ উদ্দিন আহমেদ। মতবিনিময় সভায় জেলার বিভিন্ন এনজিও কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও সাংবাদিকবৃন্দ যোগ দেন।

>