শনিবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৯শে রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > পদ্মাসেতুর কার্যাদেশ নিয়ে অর্থমন্ত্রীর সংশয় প্রকাশ

পদ্মাসেতুর কার্যাদেশ নিয়ে অর্থমন্ত্রীর সংশয় প্রকাশ

শেয়ার করুন

ঢাকা ২৬ জুন:

ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মাসেতুর কার্যাদেশ দেয়া যাবে কি না তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বুধবার বিকেলে মূল পদ্মাসেতু নির্মাণের দরপত্র আহবানের প্রতিক্রিয়া জানতে গিয়ে সন্ধ্যায় সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এ সংশয় প্রকাশ করেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার যে টাইট শিডিউলের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, এতে করে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে কার্যাদেশ দেয়া সম্ভব হবে কি না এ ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই। তিনি জানান, পদ্মাসেতু নির্মাণে ঠিকাদারদের বিল পরিশোধে বাংলাদেশ ব্যাংকে বৈদেশিক মুদ্রায় পৃথক অ্যাকাউন্ট খোলা হবে এবং রিজার্ভ থেকে অর্থ পরিশোধ করা হবে।  মুহিত বলেন, এর ফলে আন্তর্জাতিক দরদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে আগ্রহী হবে এবং তারা অংশ নেবে বলে আমি আশাবাদী।
তিনি বলেন, বর্তমানে রিজার্ভ প্রায় ১ হাজার ৫’শ কোটি ডলার। এখান থেকে ঠিকাদারদের বিল পরিশোধ করা তেমন কোনো বিষয় নয়। পৃথক এ অ্যাকাউন্টে ১২০ কোটি থেকে ১৪০ কোটি ডলার রাখা হবে।
তিনি বলেন, পদ্মাসেতু নির্মাণের জন্য এর আগে যেসব আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানকে মনোনীত করা হয়েছিল, এবার কেবল তাদেরই দরপত্র প্রদানের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে, অন্য কাউকে নয়। কারণ তারা ছাড়া অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান পদ্মাসেতু তৈরি করতে পারবে না, অন্যদের সে অভিজ্ঞতাও নেই। সুতরাং আগামীতে যে সরকারই আসুক না কেন, তাদের দিয়েই পদ্মাসেতু নির্মাণ করতে হবে। এটা নিয়ে আমরা চিন্তিত নই।
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানসমূহ যাতে অংশ নেয় এবং তাদের বিল প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতেই এ কৌশল নেয়া হয়েছে।

>