শুক্রবার , ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ , ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ , ১৩ই রজব, ১৪৪২

হোম > রাজনীতি > বিএনপি ঘুম থেকে উঠে ষড়যন্ত্র দেখে: আহমদ হোসেন

বিএনপি ঘুম থেকে উঠে ষড়যন্ত্র দেখে: আহমদ হোসেন

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেছেন, ‘বিএনপি ঘুম থেকে উঠে ষড়যন্ত্র দেখে। তারা সবকিছুতেই ষড়যন্ত্র খোঁজে। কারণ ষড়যন্ত্র থেকেই তাদের জন্ম।’

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনের দিন মহানগরীর বাসিন্দাদের সাধারণ ছুটি না দেয়ার বিষয়ে বিএনপির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আহমদ হোসেন বলেন, ‘চট্টগ্রামে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিস্থিতি বিরাজ করছে। প্রার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচারণা চালাচ্ছেন। ভোটাররাও উন্মুখ হয়ে আছেন ভোট দেয়ার জন্য। এক্ষেত্রে সাধারণ ছুটি কোনো প্রভাব ফেলবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি সবকিছুতেই ষড়যন্ত্র খোঁজে। কারণ তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না, বিশ্বাস করে বন্দুকের নলে।’

‘প্রচারণার শেষ দিকেও কেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে প্রচারণায় দেখা যাচ্ছে না, তিনি কি জয়ের ব্যাপারে পুরোপুরি নিশ্চিত হয়ে গেছেন?’ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আহমদ হোসেন বলেন, ‘আমাদের প্রার্থী ফজরের নামাজ পড়েই মানুষের বাড়ি বাড়ি চলে গেছেন। এখন বিভিন্ন জায়গায় কর্মীদের প্রশিক্ষণের কাজ চলছে, তাই প্রচারণার বিষয়টি চোখে পড়ছে না।’

বিকেল নাগাদই নগরীজুড়ে জমজমাট প্রচারণা শুরু হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, শনিবার (২৩ জানুয়ারি) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর জানান, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি থাকছে না। এদিন সব সরকারি, আধা-সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম চলবে। তবে যেসব প্রতিষ্ঠান ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হবে, সেগুলো বন্ধ থাকবে। একই সঙ্গে কর্মক্ষেত্রে যাতায়াতের সুবিধার্থে অন্যান্য দিনের মতো যানবাহনও চলবে।

এ বিষয়ে রোববার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘শনি বা বৃহস্পতিবার নির্বাচন দিয়ে আমরা আশা করি যে, ছুটি পেয়ে ভোটাররা ভোট দেবেন। কিন্তু দু-তিনদিনের ছুটি পেয়ে ভোটাররা আর ভোট দিতে যান না। এ কারণে আমরা ছুটির ঘোষণা রাখিনি। আমরা এখন মাঝখানে (ভোটের দিন) রাখি। এখন আমরা বলছি, যারা বিভিন্ন অফিস আদালতে কর্মরত থাকবেন তাদের যেন ভোট দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়।’

এ সময় তিনি জানান, নির্বাচনের দিন ট্রাক ও মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ থাকবে। তবে মাস ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম (গণপরিবহন) চালু থাকবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার বক্তব্যের দুই ঘণ্টা পরেই বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন অভিযোগ করেন, ‘ভোটাররা যাতে কেন্দ্রে যেতে না পারে এবং কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বেশি না হতে পারে সেজন্য ষড়যন্ত্রমূলকভাবে নির্বাচনী এলাকায় সরকারি ছুটি দেয়া হয়নি।’

চসিক নির্বাচনের প্রচারণার শেষ দিন সোমবার। মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা। আগামী বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

>