মঙ্গলবার , ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ , ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > বিপাশার নতুন প্রেম

বিপাশার নতুন প্রেম

শেয়ার করুন

বিনোদন ডেস্ক ॥ লাস্যময়ী নায়িকা বিপাশা বসু এখন প্রেমের জোয়ারে ভাসছেন। নতুন প্রেমিক পেয়ে নাকি আজকাল নিদারুণ পরিতৃপ্তির ছোঁওয়া লেগেছে এই বঙ্গ-ললনার চোখে-মুখে! শোনা যাচ্ছিল, জনের সঙ্গে প্রায় এক দশকের প্রেম ভেঙে যাওয়ায় দীর্ঘ দিন হতাশায় ভুগছিলেন বিপস্।

তিনি নিজেই তো বলছিলেন, ‘কব তক ইস পেয়াসি জমিন পর বারিষ কি এক বুঁদ তক নেহি গিরি’! এছাড়া কেরিয়ারটাও তাঁর ভাল যাচ্ছিল না মোটেই! এসব মিলিয়েই তো দিন দিন হতাশা গ্রাস করছিল নায়িকাকে। তাঁর জীবনটাই নাকি একেবারে মরুভূমিতে পরিণত হয়েছিল অ্যাদ্দিন। আর এ সব যখন তিনি বলে বেড়াচ্ছিলেন, ঠিক সেই সময়ই বিপসের মরুভূমির মতো জীবনে মরুদ্যান হয়ে হাজির এক নতুন পুরুষ! কে এই নতুন পুরুষ?

ইনি হলেন গিয়ে হরমন বাওয়েজা! আহা, চিনতে পারলেন না? ওই যে ‘হোয়াটস ইয়োর রাশি’ ছবির হৃত্বিক রোশন-লুক অ্যালাইক ছেলেটি, যিনি কিনা আগে পিগি চপস-এর বয়ফ্রেন্ড ছিলেন। পিগির কাছে ল্যাং খেয়ে বিপাশাকেই এখন আপন করেছেন তিনি! মাস দু-এক হল একে অন্যকে ডেট করছেন বিপাশা-হরমন। দু’জনে একসঙ্গে রোম্যান্টিক হলিডেও কাটিয়ে এলেন গোয়াতে।

গোয়ার সমুদ্র সৈকতে প্রেম করতে গিয়েই তো প্রথম ধরা পড়ে যান তাঁরা। তা, শুধুই কি গোয়া? লস অ্যাঞ্জেলেসেও হরমন-বিপাশাকে হাত-ধরাধরি করতে দেখে ফেলেছিলেন কন্যের ভারতীয় ফ্যানেরা! তা লোকে যখন দেখেই ফেলল, তখন আর লুকোচুরি করে লাভটা কি? সে কথা বুঝেই এখন নায়িকা বলে বেড়াচ্ছেন, ‘হরমন ইজ আ পার্ট অফ মাই লাইফ’!

এছাড়া বিভিন্ন পার্টিতেও বিপস-হরমন এখন সকলের হেড-টার্নার! নতুন প্রেমে এমনি মজেছেন কন্যে যে, কোনও পার্টিতে প্রেমিকের নেমন্তন্ন না থাকলেও বগল-দাবা করে নিয়ে যাচ্ছেন তাঁকে। এই তো সেদিনের ঘটনা! বিপাশার বন্ধু রকি এস-এর পার্টিতে নেমন্তন্ন ছিল শুধুই বিপসের। হরমনকে তো রকি নিমন্ত্রিতের তালিকায় রাখেনইনি!

তবু প্রেমিককে নাকি একেবারে হিড়-হিড় করে টানতে টানতে রকির পার্টিতে নিয়ে গেলেন নায়িকা! এছাড়া জ্যাকি ভগনানির বার্থ ডে পার্টিতেও একসঙ্গে হাজির হয়েছিলেন এই লাভ বার্ডস। আরও মজার ব্যাপার কি জানেন? ওই পার্টিতেই উপস্থিত হয়েছিলেন মেয়ের পুরনো-প্রেম জন। আর জন থাকবেন জেনেই নাকি নিজের নতুন প্রেমিককে বিনা নেমন্তন্নেও পার্টিতে নিয়ে গেছিলেন বিপস্।

নিন্দুকেরা তো বলছেন, প্রাক্তন প্রেমিককে জেলাস কীভাবে করা যায়, সেই টিপস এবার তাঁরা বিপস্-এর থেকেই নাকি নেবেন! জন অবিশ্যি বিশেষ পাত্তা-টাত্তা দেননি তাঁদের। এমনিতে কিন্তু হরমনের বেশ খেয়াল রাখেন বিপাশা। কিছু মাস আগেই তো শমিতা শেঠির কাছে প্রেমে ঘা খেয়েছিলেন হরমন। আর সেই ঘায়ে মলম লাগিয়ে দিলেন তো বিপস্-ই!

তবে ‘ফ্লপ হিরো’ হরমনের সঙ্গে নিজেদের ‘হিট’ মেয়ের প্রেমালাপকে মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না নায়িকার বাবা-মা। তাঁরা নাকি মেয়ের কান ভাঙানোর জন্য আজকাল জনের প্রশংসাও শুরু করেছেন! বলছেন এর চেয়ে নাকি জন-ই ভাল ছিলেন! তবে মেয়ের কান ভাঙানো যে এত সহজ না, তা হাড়ে-হাড়ে টের পাচ্ছেন বালিগঞ্জের মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বসু। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়।

>