সোমবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ , ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৪ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > খেলা > ব্যাটিংই মূল শক্তি

ব্যাটিংই মূল শক্তি

শেয়ার করুন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মুশফিকদের হারিয়ে চমক দেখিয়েছে অনূর্ধ্ব-২৩ দল। লিটন কুমার দাসের সেঞ্চুরিতে বিসিবি একাদশের মোড়কে জাতীয় দলকে নিজেদের ব্যাটিং শক্তি দেখিয়েছে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের তরুণরা। আর এই  ব্যাটিং ও ফিল্ডিং শক্তিতে ভর করেই সিঙ্গাপুরে এসিসি’র এমার্জিং কাপে ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন দেখছেন কোচ মিজানুর রহমান বাবুল। অনূর্ধ্ব-২৩ দলের শক্তি কি? কোচের মতো ক্রিকেটারও মানেন দলের ব্যাটিংটাই বড় শক্তি। অনুশীলন ম্যাচ সেঞ্চুরি হাঁকানো লিটনও বলেন, ‘আমাদের ব্যাটিং সাইডটা খুব ভাল। তবে  বোলিংটাও খারাপ না। আমরা এই বোলিং নিয়ে বিসিবি একাদশের বিপে জয় পেয়েছি।’ দলের আরেক ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারও মনে করেন দলের ব্যাটিং শক্তিই তাদের এগিয়ে রাখবে টুর্নামেন্টে। অন্যদিকে পেস বিভাগ নিয়ে চিন্তিত কোচ বাবুল। তবে পেসার দেওয়ান সাব্বির বলেন, তারা প্রস্তুত নিজেদের সেরাটাই দিতে। ১৫ই আগস্ট সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে উড়বে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের তরুণরা। ১৭ই আগস্ট ‘বি’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপ সিঙ্গাপুর। দলের শক্তি নিয়ে মানবজমিনের সঙ্গে কথা বলেছেন লিটন কুমার দাস, সৌম সরকার ও কোচ মিজানুর রহমান বাবুল। তার চৌম্বক আংশ তুলে ধরা হলো-

দলের ব্যাটিং নিয়ে চিন্তা নেই- লিটন কুমার
আসলে ব্যাটিংটা খুব ভাল আমাদের দলের। আমি ছাড়াও দলের জন্য যে কোন সময় ব্যাট হাতে  ভাল কিছু করার মতো আরও অনেক ব্যাটসম্যান আছে। আমাদের ওপেনিং ও মিডল অর্ডার বেশ শক্তিশালী। মিথুন আলী, আসিফ আহমেদ রাতুল, সৌম্য সরকার, সাব্বির আহমেদ রুম্মান, মিজানুর রহমান বেশ ভাল ব্যাটসম্যান। তারা সুযোগ পেলে দলের জন্য ব্যাট হাতে ভাল করবে। আমরা দীর্ঘ দিন ধরে অনুশীলন করছি, ল্য তো ভাল করারই। বিশেষ করে আমি সুযোগ পেলে সুযোগ কাজে লাগাতে চাই। এখন অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে খেলছি। আমি এর বাইরে অন্য কিছু নিয়ে ভাবতে চাইনা। যখন খেলছি ভাল করতে পারলে একদিন জাতীয় দলে সুযোগ আসবে। আমি সেঞ্চুরি করেছি- এটা আমার জন্য খুব ভাল হয়েছে। যাওয়ার আগে অনুশীলন ভাল করতে পেরেছি। এবার ল্য ধারাবাহিকতা ধরে রেখে দলের জন্য ভাল কিছু করা।

ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই- সৌম্য সরকার
আসলে বেশ অনেক দিন হলো অনুশীলন করছি। তার মধ্যে আমি আমার ধারাবাহিকতা নিয়ে বেশি কাজ করেছি। কারণ, আমার এই সমস্যাটা খুব পোড়াচ্ছে। বুঝতে পারছি না কেন এমন হয়। আসলে স্কিলে যদি সমস্যা থাকতো তাহলে একদিন ভীষণ ভাল আরেক দিন খারাপ করতাম না। আমার মনে হয় আমার মানসিকতায় সমস্যা। তবে এবার সিঙ্গাপুরে মাঠে নামার সুযোগ পেলে সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখার চেষ্টা করবো। আমি মনে করি, আমাদের বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিংটা খুব শক্তিশালী। বেশ কয়েকজন ভাল ভাল ব্যাটসম্যান আছেন। বিশেষ করে মিথুন ভাই, রাতুল, মিজান ভাইরা বেশ ভাল ব্যাট করেন। আমিও সুযোগ পেলে তাদের সঙ্গে সেরাটা দেয়ারই চেষ্টা করবো।

ফাইনাল খেলতে চাই- মিজানুর রহমান (কোচ)
আমরা এমার্জিং কাপ খেলতে ১৫ই আগস্ট সিঙ্গাপুর যাব। আমরা ‘বি’ গ্রুপে আছি। এই গ্রুপে আমাদের অনেক শক্ত প্রতিপ শ্রীলঙ্কা। এছাড়াও ‘এ’ গ্রুপে পাকিস্তান আর ভারত তো আছেই। তবে আমি বিশ্বাস করি আমাদের ব্যাটিংয়ে শক্তি তা দিয়ে  ছেলেরা লড়াইটা বেশ ভালই করতে পারবে। আমাদের ল্য তো ফাইনাল খেলার। আমরা ফাইনাল খেলার ল্য নিয়ে সিঙ্গাপুর যাচ্ছি। তবে ব্যাটিং ছাড়াও আমাদের আরেকটি শক্তিশালী দিক ফিল্ডিংও। ব্যাটিং আর ফিল্ডিংয়ে আমার বেশ ভরসা। বোলিং বিভাগে স্পিনটা ভাল হলেও পেস বিভাগ নিয়ে আমি একটু চিন্তিত। দলে কোন ইনজুরি নেই তবে আলাউদ্দিন বাবু, দেওয়ান সাব্বির যারা দলে পেসার হিসেবে আছে তারা এভারেজ বোলার। তবে সব মিলিয়ে আমি আশা করি দল ভাল করবে। নিজেদের সেরাটা দিতে পারলে ফাইনাল খেলা অসম্ভব না। আমাদের এখনও অধিনায়ক কে হচ্ছে তা ঠিক করা হয়নি। দলে প্রায় ৪-৫ জন ওপেনার আছে। এখনও অনুশীল চলেছে। আশা করি এর মধ্যে আমরা ওপেনার বেছে নেব।

>