সোমবার , ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ , ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৭ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > ভোট গণনায় আজমত উল্লা সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা

ভোট গণনায় আজমত উল্লা সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হলেও ফলাফল ঘোষণার সময় কয়েকটি কেন্দ্রে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন (জিসিসি) নির্বাচনে। ১৮ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী অধ্যাপক এম. এ মান্নান ভোট গণনার বিজয়ের খবর আসতে থাকলে সরকার দলীয় সমর্থক প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা হয় বলে জানা যায়।
রাত ৯টার পর কাশেমপুর ও জরুন দু’টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গণনার অর্ধেক সময়ের পর একটি বিশেষ দলের সমর্থকরা ব্যালট বাক্স ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়ার সময় জনগণ ব্যারিকেট দিয়ে রাখেন এ রকম অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে। এ বিষয়ে রাত ১০টার দিকে রিটার্নিং অফিসার মোঃ মতিয়ার রহমানের সাথে টেলিফোনে এর সত্বতা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখনও নিশ্চিত নয়। আমাদের লোক পাঠিয়েছি। তবে শুনেছি, ভোট পূর্ণগণনার জন্য একটি পক্ষ দাবী জানান’।
সন্ধ্যায় গাজীপুর ছোট দেউরা কেন্দ্রে ভোট গণণার সময় ১৮ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থীর বিজয়ের গুজব ছড়ালে সরকার সমর্থকরা ‘ফলাফল মানি না’ বলে স্লোগান দেয়।
এছাড়া কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউট কেন্দ্রের বাইরে ১৮ দলীয় জোট সমর্থকদের রাখা দু’টি টেলিভিশনের মধ্যে সরকার সমর্থকরা একটি টেলিভিশন ভাঙচুর করলে উভয় পক্ষে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
এদিকে নির্বাচনকে সামনে রেখে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা দিতে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসারের ১১ হাজার সদস্য বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন। উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে বর্তমানে তারা সতর্কাবস্থায় রয়েছেন বলে জানা গেছে।
প্রসঙ্গত, জিসিসি নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ১০ লাখ ২৬ হাজার ৯৩৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ২৭ হাজার ৭৭৭ জন ও নারী ভোটার ৪ লাখ ৯৯ হাজার ১৬২ জন।
নির্বাচনে ৭ জন মেয়র, ১২৮ জন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর এবং ৪৫৬ জন সাধারণ আসনের কাউন্সিলরসহ মোট ৫৯১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। জিসিসিতে সাধারণ ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৭টি এবং সংরক্ষিত (নারী) ওয়ার্ড রয়েছে ১৯টি।
নির্বাচনে ১৮ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী অধ্যাপক এম এ মান্নান টেলিভিশন এবং ১৪ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী আজমত উল্লাহ খান দোয়াত কলম মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

>