রবিবার , ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ , ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ , ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২

হোম > সারাদেশ > মামলা চলমান অবস্থায় জমি দখলের চেষ্ঠার অভিযোগ!

মামলা চলমান অবস্থায় জমি দখলের চেষ্ঠার অভিযোগ!

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥
গাজীপুরের জয়দেবপুর থানাধীন মনিপুর এলাকার বোকরান মনিপুর মৌজাস্থ আর এস- ২০৬ খতিয়ানভূক্ত, আর এস- ৭৮৫নং দাগের কাতে ২২.৫০ শতাংশ জমি নিয়ে মামলা বিচারাধীন অবস্থায় মো: শাজাহান বিন আলম (৫৫) ও সিতারা মমতাজ (৫০) এর বিরুদ্ধে মামলা চলমান অবস্থায় অবৈধভাবে জমি জবর দখলের চেষ্ঠার অভিযোগ এনেছেন মহসিন (৪৩) নামে একব্যক্তি।

অবৈধভাবে জমি জবর ঠেকাতে এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন জমির বর্তমান ভোগ দখলকারীদের একজন মো: মহসিন আলম।

অভিযোগ রয়েছে, পৃথক পৃথক সাব কবলা দলিল মূলে নিরঞ্জন গংদের নিকট থেকে বোকরান মনিপুর মৌজাস্থ আর এস- ২০৬ খতিয়ানভূক্ত, আর এস- ৭৮৫নং দাগের কাতে ২২.৫০ শতাংশ জমি কিনে খাজনা খারিজ করে ভোগদখল করে আসছিলেন মো: মহসিন আলম, জুয়েল আহম্মেদ ও সাজেদা আক্তারগণ। এমন অবস্থায় ঢাকা গুলশান-২ এর রোড নং- ১০২, বাড়ি নং-১৯ এর মৃত আনোয়ারুল আলমের পুত্র শাজাহান বিন আলম, সিতারা মমতাজ স্থানীয় মনিপুর মধ্যপাড়া এলাকার আজিজুল হক বিশ্বাসের পুত্র রবিউল বিশ্বাস (৪০) ও মনিপুর বাজার এলাকার আবুলের পুত্র সিরাজুল ইসলাম (৩৫) এর সহযোগীতায় তাদের ক্রয়কৃত জমির মালিকানা দাবি করে দখলের চেষ্ঠা করলে মহসিনরা গাজীপুরের যুগ্ম জেলা জজ আদালত-১ এ দেওয়ানী মামলা নং ১৫৫/১২ দায়ের করেন। পরবর্তীতে মহসিন গংরা জমিতে নির্মাণ কাজ করিতে গেলেও শাজাহান ও মমতাজ গংরা বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধেও আদালতে পিটিশন মামলা নং-১২৩/১৩, ধারা-১৪৫, ফৌ: কা: বি: দায়ের করেন। এরপর পুলিশি রিপোর্টের ভিত্তিতে আদালতে অস্থায়ীভাবে নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন।

এরপূর্বে শাজাহান ও মমতাজরা মহসিন গংদের খারিজ বাতিলের জন্য এডিসি (রাজস্ব) বরাবর মিস মামলা নং- ১৭৪/১১ দায়ের করলে আদালত এ মামলায় মহসিনদের পক্ষে রায় দেন। সে সুবাদে মহসিনরা নিজ নিজ নামে জোত খুলিয়া হালনাগাদ পর্যন্ত খাজনা পরিশোধ করে আসছিল। এছাড়াও শাজাহান-মমতাজরা জয়দেবপুর থানার মাধ্যমেও মামলা নং-২১(০৭)২০১১ দায়ের করলে আদালত মামলাটি খারিজ করে দেয়।

তবে মহসিনদের করা মামলাটি আদালতে চলমান থাকলেও গত ১৫ সেপ্টেম্বর শাজাহান-মমতাজরা কয়েকজনকে সাথে নিয়ে বাশঁ, খুটি, বালি এনে নির্মাণ কাজ করতে চাইলে মহসিন গংরা কারণ জিজ্ঞাসা করলে তাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি দামকি দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিকট দাবি জানিয়েছেন মহসিন গংরা।

>