শুক্রবার , ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ , ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ , ১০ই রমজান, ১৪৪২

হোম > আন্তর্জাতিক > মালালাকে তালেবানের চিঠি- দেশে ফেরার আহ্বান

মালালাকে তালেবানের চিঠি- দেশে ফেরার আহ্বান

শেয়ার করুন

বাংলাভূমি২৪ ডেস্ক ॥ পাকিস্তানের নারী ও শিশুশিক্ষা আন্দোলনের অগ্রদূত মালালা ইউসুফজাইকে দেশে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তেহরিক-ই-তালেবানের (টিটিপি) সিনিয়র নেতা আদনান রশিদও। মালালাকে লেখা চার পৃষ্ঠার এক চিঠিতে তিনি লিখেছেন তার ওপর হামলা কাম্য ছিল না এবং এ ধরনের হামলার ঘটনা একেবারেই অপ্রত্যাশিত ছিল। জাতিসংঘে দেয়া মামলার তাৎপর্যপূর্ণ বক্তব্যের জবাবে ১৫ই জুলাই লেখা ২০০০ শব্দের চিঠিতে আদনান রশিদ মালালাকে দেশে ফিরে এসে মহিলা মাদরাসায় ভর্তি হবার আহ্বান জানিয়েছেন। চিঠিতে সামান্যতম দুঃখ প্রকাশ না করা হলেও পাকিস্তান বিমানবাহিনীর সাবেক এই নন-কমিশন্ড অফিসার বেশ নরম ভাষায় ভ্রাতৃসুলভ আবেগ দিয়ে লিখেছেন, ঘরে (পাকিস্তানে) ফিরে এসো, ইসলামি ও পশতু সংস্কৃতিকে গ্রহণ করো এবং যে কোন একটি মহিলা মাদরাসায় ভর্তি হও। নিজের কলমকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করো…যারা পুরো মানবতাকে দাসত্ব প্রথায় আবদ্ধ করে ফেলতে সূক্ষ্ম ষড়যন্ত্র করে। পারভেজ মোশাররফ আমলের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত তালেবান কমান্ডার আদনান রশিদ দাবি করেন, নারী শিক্ষার প্রচারণার জন্য মালালার ওপর হামলা চালানো হয়নি, তিনি তালেবানদের বিরুদ্ধে প্রচারণায় নেমেছিলেন বলেই হামলা চালানো হয়েছিল। তালেবানরা নারী শিক্ষার বিরুদ্ধে নয় দাবি করে সমপ্রতি জাতিসংঘে দেয়া মালালার ভাষণের উদ্ধৃতি টেনে তিনি লিখেছেন, তুমি বলেছ তোমার কলম তরবারির চেয়ে বেশি শক্তিশালী, তুমি তরবারির জন্যই আক্রান্ত হয়েছিলে, বই কিংবা স্কুলের জন্য নয়। আদনান রশিদ তার চিঠিতে আরও লিখেছেন, তিনি নিজে ইউসুফজাই গোত্রের হওয়ার কারণে মালালাকে ব্যক্তিগত উদ্যোগে এ ‘উপদেশবাণী’ লিখছেন। মালালার ওপর গুলিবর্ষণের ঘটনার নিন্দা না জানিয়ে তিনি বলেন, ওই গুলিবর্ষণ সঠিক ছিল কি-না সে বিচার সৃষ্টিকর্তা করবেন। তিনি মালালার ওপর হামলার আগেই তার প্রচারাভিযান সম্পর্কে জানতে পেরেছিলেন বলে উল্লেখ করে আদনান রশিদ বলেন, হামলার আগেই যদি তিনি মালালাকে উপদেশ দিয়ে ‘তালেবান বিরোধী প্রচারাভিযান’ থেকে বিরত রাখতে পারতেন তাহলে তিনি খুশি হতেন।
গত বছরের অক্টোবরে স্কুল থেকে ফেরার পথে মালালার ওপর হামলা চালানোর পর বিশ্বব্যাপী তালেবানদের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় ওঠে। মাথায় গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত মালালা কয়েক মাস আগে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম হাসপাতাল থেকে প্রাথমিকভাবে আরোগ্য লাভ করেন। বর্তমানে যুক্তরাজ্য বসবাসরত মালালা সমপ্রতি জাতিসংঘ কার্যালয়ে নিজের ১৬তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেন। তালেবানদের এ চিঠির ব্যাপারে অবগত আছেন জানিয়ে মালালার মা-বাবা জানিয়েছেন তারা সরাসরি কোন চিঠি পাননি। তাছাড়া, এ চিঠির ওপর তারা কোন মন্তব্য করতেও আগ্রহী নন।

>