বৃহস্পতিবার , ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ , ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ , ১২ই রজব, ১৪৪২

হোম > গ্যালারীর খবর > মায়ের সম্মানটুকু রাখবেন না—শফীকে প্রধানমন্ত্রী

মায়ের সম্মানটুকু রাখবেন না—শফীকে প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার করুন

বাংলাভূমি২৪ ডেস্ক ॥ নারীদের নিয়ে হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ১৩ জুলাই শনিবার গণভবনে ৮৮টি নতুন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ নিন্দা জানান।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘…আমাদের একজন ধর্মীয় নেতা আল্লামা শফী, তিনি মহিলাদের সম্পর্কে অত্যন্ত জঘন্য ধরনের বক্তব্য রেখেছেন বলে আমি মনে করি। আমি শুধু এটুকু বলতে চাই, ইসলাম ধর্ম শান্তির ধর্ম এবং ইসলাম ধর্ম প্রথম যিনি গ্রহণ করেছেন তিনি কিন্তু একজন মহিলাই ছিলেন।
সম্প্রতি হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফী এক বক্তব্যে নারীদের নিয়ে মন্তব্য করেছেন। ওই বক্তব্যে তিনি নারীদের তেঁতুলের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তাঁর বক্তব্যের ভিডিও কিপ সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটগুলোতে প্রকাশ হওয়ার পর সমালোচনার ঝড় ওঠে।’ তিনি বলেন, ‘নবী করিম (সা.) যে ইসলাম ধর্ম প্রচার করেন, সে ইসলাম ধর্মটা প্রথম গ্রহণ করেছেন একজন মহিলা, বিবি খাদিজা। এটি স্মরণে রাখা উচিত ছিল।…বিবি আয়েশা নবী করিম (সা.)-এর সঙ্গে যুদ্ধের ময়দানে যেতেন, যুদ্ধ করতেন। ইসলাম ধর্মের জন্য যে জিহাদ হয়, সে জিহাদে যিনি জীবন দেন, শহীদ হন, তিনি কিন্তু একজন নারী, তিনিও একজন মহিলা, বিবি সুমাইয়া। আর সেই নারী সম্পর্কে এগুলো নোংরা, জঘন্য কথা বলা, আবার সেটাও একজন নারী নেতৃত্বকে মেনে নিয়ে।’
প্রধানমন্ত্রী আহমদ শফীর দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, ‘এখন মহিলাদের সম্পর্কে যে নোংরা কথা বলা…, তিনি কি মায়ের পেট থেকে জন্মান নাই? মায়ের সম্মানটুকু উনি রাখবেন না? উনার কোনো বোন নেই? ওনার স্ত্রী নেই? তাদের সম্মান রাখবেন না, যে এ ধরনের নোংরা জঘন্য কথা বলেন?’
প্রধানমন্ত্রী শফীকে উদ্দেশ করে আরও বলেন, ‘এ ধরনের নোংরা কথা কেন বলবেন? আমাদের দেশের নারী সমাজের এ ব্যাপারে আরও সোচ্চার হওয়া উচিত। কাজেই ইসলাম ধর্ম একমাত্র ধর্ম যে নারীকে অধিকার দিয়েছে। নারীকে বাপের বাড়ির অধিকারও দিয়েছে, স্বামীর বাড়িতেও অধিকার দিয়েছে। মেয়েরা কিন্তু দুই দিকেই অধিকার ভোগ করতে পারে। কাজেই এটা আমাদেরকে মনে রাখতে হবে। আর নেতৃত্বে কে থাকবে, না থাকবে সে ব্যাপারে তো জনগণ যদি সিদ্ধান্ত নেবে।’
আহমদ শফী নারীদের চলাফেরার েেত্র শালীনতা নিয়ে যে প্রশ্ন তুলেছেন, সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শালীনভাবে চলাফেরা করার আমরাও প।ে’

>