বুধবার , ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ , ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৯ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > আন্তর্জাতিক > মোরালেসের মার্কিন দূতাবাস বন্ধের হুমকি

মোরালেসের মার্কিন দূতাবাস বন্ধের হুমকি

শেয়ার করুন

বাংলাভূমি ডেস্ক ॥ বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন। ইউরোপের আকাশসীমায় মোরালেসের বিমান প্রবেশে বাধা দেয়ার প্রেক্ষিতে তিনি বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে এ হুমকি দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার এক শীর্ষ সম্মেলনে দক্ষিণ আমেরিকার বামপন্থি নেতারা মোরালেসের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করার পর মোরালেস এ হুমকি দেন বলে বিবিসি জানিয়েছে। মঙ্গলবার বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট মোরালেস মস্কো সফর শেষে দেশে ফেরার পথে তার বিমানে যুক্তরাষ্ট্রের আড়িপাতার গোপন তথ্য ফাঁস করে দেয়া সাবেক সিআইএ কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেন রয়েছেন সন্দেহে বিমানটিকে বাধা দিয়ে অস্ট্রিয়ায় জরুরি অবতরণে বাধ্য করা হয়। একই সন্দেহে ইউরোপের ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন ও পর্তুগাল মোরালেসকে বহনকারী বিমানটিকে তাদের আকাশসীমায় প্রবেশ করার অনুমতি দেয়নি। ইভো মোরালেস মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্রের চাপের কারণেই ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো তাদের আকাশসীমায় তাকে বহনকারী বিমানকে ঢুকতে দেয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, বলিভিয়াতে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস বন্ধ করে দেয়ার বিষয়টি তিনি ভেবে দেখবেন। প্রয়োজনে তিনি সেটা বন্ধ করে দেবেন। মোলেস বলেন, বলিভিয়াতে মার্কিন দূতাবাসের কোন প্রয়োজন নেই। মার্কিন দূতাবাস বন্ধের ব্যাপারে আমার হাত একটকুও কাঁপবে না। মোরালেস বলেন, আমাদের আত্মমর্যাদা ও সার্বভৌম ক্ষমতা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াই আমরা রাজনৈতিকভাবে এবং গণতান্ত্রিকভাবে অনেক উন্নত। বৃহস্পতিবার বলিভিয়ার কোচাবামবা শহরে আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে, ইকুয়েডর, ভেনিজুয়েলা এবং সুরিনামের প্রেসিডেন্টদের সঙ্গে এক শীর্ষ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট রাফায়েল কোরেয়াসহ অন্যান্য দেশের নেতারা মোরালেসের প্রতি পূর্ণ সমর্থন ব্যক্ত করেন।
এ সময় আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিনা ফার্নান্দেজ ক্রিশ্চনার এ ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। এর আগে এ ঘটনায় ইতিমধ্যে ‘পরস্পরবিরোধী তথ্য’র কারণেই এ ভুল হয়েছে বলে যুক্তি দেখিয়ে ক্ষমা চেয়েছে ফ্রান্স। বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘে নালিশ জানানোরও হুমকি দিয়েছিল বলিভিয়া। এরপরই ওই ঘটনার জন্য ক্ষমা চায় ফ্রান্স।

>