সোমবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ , ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১৪ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > মোহামেডানের বাধা এখন শেখ জামাল

মোহামেডানের বাধা এখন শেখ জামাল

শেয়ার করুন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হ্যাটট্রিক শিরোপার পথে মোহামেডানের বাধা এখন শেখ জামাল ধানমন্ডি কাব। মহিলা কাব ক্রিকেটের ৫ম আসরে গতকাল ধানমন্ডি কাব মাঠে দিপালী কাবকে ২১৩ রানে হারিয়ে টানা পাঁচবার ফাইনালে খেলার টিকিট পেল মোহামেডান কাব। অন্যদিকে দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে খেলার সুযোগ পেয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি। তারা গুলশান ইয়ুথ কাবকে ৬১ রানে হারিয়েছে মিরপুরের সিটি কাব মাঠে। আগামীকাল আবাহনী কাব মাঠে ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এবারের ফাইনাল মোহামেডানের জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। শেখ জামালকে হারাতে পারলেই মোহামেডান ঘরে তুলবে হ্যাটট্রিক শিরোপা। সেই সঙ্গে ৫ম আসরে তাদের চতুর্থ শিরোপা জয়ও হবে। ওদিকে শেখ জামালের জন্যও ম্যাচটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, দ্বিতীয়বার তাদের সুযোগ এসেছে মহিলা কাব ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। ২০১১ সালে তারা প্রথম সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু সেবারও তাদের প্রতিপ ছিল মোহামেডান। তাই কাল ফাইনালে মর্যাদার লড়াইয়ে দুই দলই চাইবে যে কোন উপায়ে নিজেদের ঘরে জয় তুলে নিতে।
শুকতারার ব্যাটে প্রথম সেঞ্চুরি
নানা প্রতিকূলতায় চলছে এবারের মহিলা কাব ক্রিকেট। বৃষ্টি আর মাঠ সমস্যায় ৩৩টি ম্যাচের বাতিল হয়েছে ৯টি। তবে মেয়েরা থেমে থাকেনি। মাঠ নিয়ে অভিযোগ থাকলেও তারা নিজেদের সেরা খেলাটা দেয়ারই চেষ্টা করেছে। গতকাল ৫ম আসরে প্রথম সেঞ্চুরিটি আসে মোহামেডানের ক্রিকেটার আয়েশা আক্তার শুকতারার ব্যাট থেকে। ধানমন্ডি কাব মাঠে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে মোহামেডান দিপালী কাবের বিপে সংগ্রহ করে ৪০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৭৫ রান। শুকতারা করেছেন ৮৯ বলে ১০৭ রান। তবে তার সঙ্গে দলকে বড় স্কোর গড়তে ভূমিকা রেখেছেন দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন। তিনিও ফিফটি হাঁকান। সালমার সংগ্রহ ছিল ৬৭ বলে ৭৮ রান। জবাব দিতে নেমে দিপালী ৩৬.২ ওভার খেলে মাত্র ৬২ রানে সবকটি উইকেট হারায়। ফলে বরণ করে নেয় ২১৩ রানে বিশাল পরাজয়।
অন্যদিকে শুকতারার এটি প্রথম সেঞ্চুরি হলেও মহিলা কাব ক্রিকেটে তার সেঞ্চরিটি চতুর্থ। প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন বিকেএসপির শারমিন আক্তার সুপ্তা ২০১১ সালে। এরপর ২০১২ সালে ফারজানা ও লিসার ব্যাট থেকে আরও দুটি সেঞ্চুরি এসেছিল। সেঞ্চুরি নিয়ে আয়েশা আক্তার শুকতারা বলেন, ‘আমার খুব ভাল লাগছে যে কাব ক্রিকেটে আমি নিজের প্রথম সেঞ্চুরিটি করতে পারলাম। তবে আমাদের যে সমস্যা নিয়ে খেলতে হয়েছে তা বলার বাইরে। মাঠ সমস্যা তো সব সময়ই ছিল। আর এবার খেলা হয়েছে বৃষ্টির মওসুমে। যেসব মাঠে খেলা হতো সেখানে বৃষ্টি হলেও জমে যেত পানি। তবুও আমরা নিজেদের সেরা খেলাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি।’ এছাড়াও শুকতারা বাংলাদেশের মহিলা ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে ভাল মাঠে খেলা দেয়াসহ ম্যাচ ফিট নিশ্চিত করার জন্যও বিসিবির কাছে অনুরোধ করেন।
ওদিকে শেখ জামাল কাব মিরপুরের সিটি কাব মাঠে টসে জিতে ব্যাট করতে নামে গুলশান ইয়ুথ কাবের বিপ।ে লতা মণ্ডল ৩৩ ও জাহানারার ৩২ রানে ভর করে তারা সংগ্রহ করে ৪০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান। জবাব দিতে নেমে ২৯.৩ ওভারে সব কটি উইকেট হারিয়ে ৮৬ রানেই শেষ হয় গুলশান কাবের।

>