বুধবার , ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ , ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ৯ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > Uncategorized > লাথি খাওয়ার দরকার ছিল

লাথি খাওয়ার দরকার ছিল

শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক ॥ নিজের শাস্তি পাওয়াটা যথার্থ ছিল বলে মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। নিজের দোষ স্বীকার করে তিনি বলেন, আমার অবশ্যই পাছায় লাথি খাওয়া দরকার ছিল। আমি সত্যিই ভুল করেছিলাম। যথার্থ শাস্তিই আমি পেয়েছি।
ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি চলাকালে বার্মিংহ্যামের পানশালায় ইংলিশ ব্যাটসম্যান জো রুটকে ঘুষি মেরে খবরের শিরোনাম হন তিনি। এই অপরাধে ২৬ বছর বয়সী ওয়ার্নারকে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্ট পর্যন্ত নিষিদ্ধ করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এরপর তাকে অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের সঙ্গে পাঠানো হয় জিম্বাবুয়ে ও দণি আফ্রিকা সফরে।
অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা অ্যাশেজে যখন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে নাকানি চুবানি খাচ্ছিল ঠিক সেই সময়ে দণি আফ্রিকায় ব্যাটে রানের ফুলঝুরি ছোটান ওয়ার্নার। আফ্রিকা ‘এ’ দলের বিরুদ্ধে তিনি খেলেন ২২৬ বলে ১৯৩ রানের অনবদ্য ইনিংস। অন্যদিকে চরম ব্যাটিং ব্যর্থতায় অস্ট্রেলিয়া ট্রেন্ট ব্রিজের প্রথম টেস্টে ১৪ রানে আর লর্ডসের দ্বিতীয় টেস্টে হারে আরও বড় ব্যবধান ৩৪৭ রানে। পাঁচ ম্যাচের টেস্টে এখন সিরিজ খোয়ানোর শঙ্কা তাদের সামনে।
১লা আগস্ট থেকে শুরু হওয়া ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডের তৃতীয় টেস্টে তাই বেশ কদর বেড়ে গেছে ডেভিড ওয়ার্নারের। জাতীয় দলের ব্যাটসম্যানদের ধারাবাহিক ব্যর্থতায় তৃতীয় টেস্টে তার ফেরার পথটা প্রায় পরিষ্কার এখন। নিজের দলে ফেরার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ওয়ার্নার।
অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টানা ১৯টি টেস্ট খেলার পর একটু ভুলের জন্য তাকে বাদ পড়তে হয় দল থেকে। আর সেই ভুল স্বীকার করে তিনি আবারও দলে ফেরার জন্য মরিয়া। দলে ফিরলে তাকে ছয় নম্বরে ব্যাট করতে হতে পারে। তবে এতে কোন অসুবিধা মনে করছেন না তিনি। কারণ, দণি আফ্রিকা ‘এ’ দলের বিরুদ্ধে ম্যাচে তার করা ২২৬ বলে ১৯৩ রানের ইনিংসটি এসেছে চার নম্বরে ব্যাট করে। প্রথম শ্রেণীর ম্যাচে এর চেয়ে বড় ইনিংস আছে ওয়ার্নারের। তবে বর্তমান অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের ক্রিকেটারেরা যে সমস্যায় ভুগছেন সেই ক্রিজে সময় কাটানোটা ছিল তার বেশ।

>