শুক্রবার , ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১১ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > খেলা > শিষ্যদের উন্নতি দেখছেন ক্রুইফ

শিষ্যদের উন্নতি দেখছেন ক্রুইফ

শেয়ার করুন

স্পোর্টস ডেস্ক ॥ বাফুফে একাদশের বিরুদ্ধে ম্যাচে বেশ হতাশ ছিলেন লুডোভিক ডি ক্রুইফ। ৪-২ গোলে জয়ের পরও ডিফেন্সের ওপর ুব্ধ ছিলেন এই কোচ। তবে বিজেএমসি’র বিরুদ্ধে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে বেশ নির্ভার মনে হয়েছে ক্রুইফকে। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ২৫ মিনিটে তিন গোল করে তাকে নির্ভার করেছেন ওয়াহেদ ও এমিলি। যদিও গোল তিনটিরই কারিগর ছিলেন দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে খেলতে নামা লেফট উইংগার মোবারক হোসেন ভূঁইয়া। এই ফুটবলারের পারফরম্যান্সে খুশি ক্রুইফ। ‘মোবারক খুব আক্রমণাত্মক ফুটবলার। ওর ক্রস ভাল, ডিব্লিংও ভাল। গত দুই ম্যাচে সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রাখছিলেন বলে এই ম্যাচে অনেক ক্রেজি ছিল মোবারক, যা গতকাল ওকে ভাল খেলতে সাহায্য করেছে’, বলেন তিনি। মোবারকের সম্পর্কে খোলামেলা কথা বললেও জামাল ভূঁইয়া, বিপ্লব, রেজা, জাহিদ, রনি কারও সম্পর্কেই তেমন কিছু জানালেন না কোচ। গতকালের ম্যাচ সম্পর্কে ক্রুইফ বলেন, প্রথম ৪৫ মিনিটে খেলা আমাকে হতাশ করেছে। তবে দ্বিতীয়ার্ধের বেশ কয়েকটি পরিবর্তন ম্যাচ মোড় ঘুরিয়ে দেয়। এই আর্ধে ডিফেন্সে মিশুর পরিবর্তে রেজা, লিংকনের জায়গায় রায়হান, তকলিসের জায়গায় মোবারক ও গোলরক মামুন খানের পরিবর্তে বিপ্লবকে মাঠে নামান ক্রুইফ। দ্বিতীয়ার্ধের ২৫ মিনিটে তিন গোল পায় জাতীয় দল। মোবারকের দারুণ এক ক্রসে গোল করেন ওয়াহেদ। পেনাল্টি থেকে এমিলির গোলের পর আবারও গোল করেন এই স্টাইকার। ওয়াহেদের দ্বিতীয় গোলের সহায়তায় ছিলেন মোবারক। তিন গোলের পরই কিছুটা ঝিমিয়ে যায় ম্যাচ। এ সময় সমান তালেই লড়াই করে বিজেএমসি। শেষ ১৫ মিনিটে ইনজুরি থেকে ফেরা স্টাইকার শাখাওয়াত হোসেন রনি ও লেফট উইংগার জাহিদ হোসেনকে মাঠে নামান কোচ। তাদের ফেরায় খুশি ক্রুইফ। তবে নিজ পজিশনে মোবারকের দারুণ পারফরম্যান্সে বেশ নার্ভাস মনে হচ্ছিল জাহিদকে। তবে এটা মানছেন না কোচ। তিনি বলেন, ইনজুরি থেকে ফেরার পর এমনটিতেই ফুটবলাররা কিছুটা নার্ভাস থাকে। জাহিদ ও রনির বেলায়ও তেমনটি ঘটেছে। তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে কাদের নিয়ে থাইল্যান্ড যাবেন তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেননি ক্রুইফ। ‘আমার হাতে ২৬ ফুটবলার রয়েছে। এমন হতে পারে এই ২৬ জনকে নিয়েই থাইল্যান্ড যাব। আবার এমনও হতে পারে দুই-তিনজনকে রেখে যেতে পারি।’ এদিকে আরেক বিদেশী ফুটবলার রিয়াসাত আজ দেশে আসছেন। এটাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন ক্রুইফ। ‘আজ রিয়াসাত আসছেন। থাইল্যান্ড যাওয়ার আগে ও আশাতে খুবই ভাল হয়েছে। আমি এ সময়ে ওকে দেখতে পারব।’ দলের ডিফেন্স নিয়ে গতকালও খুশি হতে পারেননি ক্রুইফ। তবে দু’দিন আগে ক্যাম্পে যোগ দেয়া রেজাকে আরও সুযোগ দিতে চান তিনি। ‘রেজা মাত্র যোগ দিয়েছে। আরও কিছুদিন যাওয়ার পর ওর সম্পর্কে মন্তব্য করব আমি,’ বলেন জাতীয় দলের এই হেড কোচ। সাফের এখনও অনেক সময় বাকি উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রতিটি ম্যাচেই ছেলেরা ভাল করছে। বিশেষ করে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ উন্নতি ল্য করছেন ক্রুইফ। এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারলে সাফে ভাল করা সম্ভব বলে মন্তব্য তার।

>