শুক্রবার , ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ , ১১ই রবিউস সানি, ১৪৪২

হোম > শীর্ষ খবর > হরতালে ২০ পয়েন্টে থাকবে গণজাগরণকর্মীরা

হরতালে ২০ পয়েন্টে থাকবে গণজাগরণকর্মীরা

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মঙ্গলবারের হরতালে ঢাকার ২০ পয়েন্টে অবস্থান নেবে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা। মূল পয়েন্ট হিসেবে ধরা হবে শাহবাগের গণজাগরণ চত্ত্বর।
সোমবার রাত ১২টার দিকে বিষয়টি জানান গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ড. ইমরান এইচ সরকার।
তিনি বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ উপায়ে কর্মসূচি পালন করবো। এ কর্মসূচিতে কেউ বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা সময়োচিত সিদ্ধান্ত নিবে। গত ৬ মাস ধরে আমরা শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করছি। কোনো ধরনের সহিংসতায় যাইনি। ৬ এপ্রিল হেফাজতের সন্ত্রাসীরা আমাদের উপর আঘাত হানতে চেয়েছিলো। গণজাগরণ কর্মীরা তা প্রতিহত করেছে।
তিনি আরও বলেন, ‘সারাদেশে গণজাগরণ কর্মী ও যারা স্বাধীনতার চেতনা লালন করে তারা একযোগে এ কর্মসূচি পালন করবে।’
একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযমের সর্বোচ্চ শাস্তি না হওয়ায় গণজাগরণ মঞ্চ সেখানে বিােভ করছে। পাশাপাশি তারা মঙ্গলবার হরতালের ঘোষণা দিয়েছে।
সোমবার রাত সোয়া আটটার দিকে ইমরান এইচ সরকারের নেতৃত্বে মশাল মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শাহবাগ চত্বর থেকে শুরু হয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, হোটেল রুপসী বাংলা মোড় এবং বাংলামোটর মোড় প্রদণি করে পুনরায় শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চে এসে শেষ হয়।
মশাল মিছিল থেকে গোলাম আযমের রায় প্রত্যাখ্যান এবং জামায়াতের ডাকা হরতাল প্রতিহত করে মঙ্গলবার গণজাগরণ মঞ্চের ডাকা হরতাল পালন করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহবান জানানো হয়।
উল্লেখ্য, জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযমকে সোমবার ৯০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। ৫ ধরনের ৬১ অপরাধের দায়ে তার এ শাস্তির আদেশ দিয়েছেন চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীর, বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি আনোয়ারুল হকের সমন্বয়ে গঠিত ৩ সদস্যের ট্রাইব্যুনাল।

>